সম্পূর্ন জানতে দেখতে ক্লিক করুন
লাইফ স্টাইলসারাদেশ

ফেইসবুকের প্রেমের টানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যুবক তালতলীতে এসে আটক

ফেইসবুকের প্রেমের টানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যুবক তালতলীতে এসে আটক

সাইফুল্লাহ নাসির,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ

ফেইসবুকে প্রেমের টানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে বরগুনার তালতলীতে এসে গ্রেফতার হয়েছেন আল আবির মৃধা। ফেইসবুকে যোগাযোগ তারপর প্রেম সেই প্রেমের টানে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার তুলাই শিমুল এলাকার মনিরুজ্জামান মৃধার পুত্র আল আবির মৃধা ছুটে আসেন বরগুনার তালতলীতে।

এসে জানতে পারেন তিনি প্রতারণার শিকার হয়েছেন ফেসবুকে যে নামের আইডির সাথে কথা বলছেন তিনি,সেই নামের নারী বিবাহিত এবং এ বিষয়ে ওই গৃহবধূ কিছুই জানে না। আজ বুধবার (২৭ মার্চ) দুপুরে জিজ্ঞাসাবাদের পর আল আবিরকে মায়ের জিম্মায় দিয়ে দেওয়া হয়।

এর আগে মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) দুপুরে উপজেলার নয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার কলেজ পড়ুয়া এক যুবকের সাথে বরগুনার তালতলী উপজেলার নায়াপাড়া এলাকার এক কিশোরীর (ফেইসবুক আইডি অনুসারে) সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয়।

আলাপের মাধ্যমে দুজনের মধ্যে বাড়তে থাকে ঘনিষ্ঠটা। এরপর প্রেমের টানে বান্ধবীকে এক নজর দেখতে ছুটে আসেন তালতলীতে। ভুক্তভোগী প্রেমিক আল আবির মৃধা বলেন, ফেসবুকের একটি গ্রুপ থেকে আরিফা ইসলামের সাথে পরিচয় এর পর ফেসবুকের মেসেঞ্জার এর মাধ্যমে তার সাথে বেশ কয়েকবার কথা ও মেসেজে নিয়মিত যোগাযোগ হতো।

তার ফেসবুক আইডির নাম ছিল (আরিফা ইসলাম) সে আমাকে আসতে বলেছে আমি এই এলাকায় এসেছি তার সাথে দেখা করতে। আমি এসে জানতে পারি ওটা একটি ফেক আইডি ছিলো। রাতে আমাকে আশ্রয় দিয়েছিলো স্থানীয়রা।

পরের দিন সকালে পুলিশ আমাকে আটক করে। স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ সাগর বলেন,রাতে ওই ছেলে এই এলাকায় এসেছে তার প্রেমিকাকে দেখার জন্য। পরে আমরা বিষয়টি শুনে তাকে বলেছি, তিনি যে মেয়ের জন্য এসেছেন সেই মেয়ে বিবাহিত এবং এখানে থাকে না শ্বশুর বাড়ী থাকে।

ওই গৃহবধুর শ্বশুর আবুল মিয়া জানান, কে বা কারা ফেসবুকে আমার ছেলের স্ত্রীর ছবি নাম ব্যবহার করে ওই ছেলের সাথে কথা বলেছে। আমর ছেলের বউ এ ব্যাপারে কিছুই জানি না। ভুক্তভোগী আল আবি মৃধার মা খোরশেদা বেগম বলেন, আমার ছেলের তালতলীতে এসে ফেসবুকে ফেইক আইডির প্রতারণা শিকার হয়েছে।

আমি খবর শুনে এসেছি। আমার ছেলে সুস্থ ও স্বাভাবিক আছে আমার কোন অভিযোগ নেই। তালতলী থানার (ওসি) শহিদুল ইসলাম খান জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলা থেকে এক যুবক এসেছেন তার প্রেমিকার সাথে দেখা করতে।

এ নিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয়রা বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে পুলিশি হেফাজতে থানায় নিয়ে আসা হয়। তিনি আরও জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলার ওই যুবকের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তার মা ও বোনের নিজ জিম্মায় আলআবি মৃধাকে দেওয়া হয়েছে। তাদের কোনো অভিযোগ নেই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button