সম্পূর্ন জানতে দেখতে ক্লিক করুন
ঘটনা-দুর্ঘটনা

ময়মনসিংহে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
এস এম হোসেন আলী
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার পল্লীতে নিজ ঘরে অটোরিক্সা চার্জ দিতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে একই পরিবারের ৪ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
৩০ ডিসেম্বর-২০২৩ ইং তারিখ রোজ শনিবার বিকেল প্রায় ৪ ঘটিকার সময় ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়নের দক্ষিণ বীরঘোষপালা পূর্বপাড়া গ্রামে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হল-দক্ষিণ বীরঘোষপালা পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের পূত্র জামাল উদ্দিন (৪০), জামাল উদ্দিনের মা আনোয়ারা বেগম (৬৫), জামাল উদ্দিনের শিশু কন্যা ফাহমিদা ইসলাম ফাইজা(৬)ও ফারিয়া ইসলাম আনিকা (৪)।নিহত জামাল উদ্দিন অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে তার পরিবার পরিজন নিয়ে চলতেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, জামাল উদ্দিন তার নিজ টিনের চাপড়া ঘরের ভেতর প্রতিদিন নিজের অটোরিক্সা চার্জ দিতেন।প্রতিদিনের মতই শনিবার চার্জ দেওয়া থেকে অটোরিক্সাটি ছাড়াতে গিয়ে তিনি প্রথমে বিদ্যুায়িত হন। এসময় তার দুই শিশু কন্যা আনিকা ও ফাইজা বিষয়টি বুঝতে না পেরে ইজিবাইকে উঠবে বলেই একে একে দু’জনই তার বাবাকে জড়িয়ে ধরলে তারাও বিদ্যুায়িত হয়। হঠাৎ কিংকর্তব্যবিমুঢ় জামালের মা আনোয়ারা বেগম নিজ ছেলে ও নাত্নীদের বাচাঁতে গেলে তিনিও বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলে নিহত হন।
ঘটনার পরপরই নিহত জামাল উদ্দিনের বড় মেয়ে জান্নাতুল মারুফা (৮) তার চাচার বাড়ি থেকে নিজ ঘরে এসে দেখতে পান পরিবারের সবাই মাটিতে পড়ে রয়েছে। পরে জান্নাতুল মারুফার ডাক চিৎকারে তার চাচা নুরুল হক দৌড়ে ছুটে এসে ঘরের বিদ্যুতের মেইন সুইচ বন্ধ করলে ততক্ষণে তিনি দেখতে পান তাঁর আপন ভাই, মা ও দুই ভাতিজি মারা গেছেন। পরে তাদের ডাকচিৎকারে  স্থানীয় লোকজন ছুটে আসে ঘটনাস্থলে।
এলাকাবাসী জানান,নিহত জামাল উদ্দিনের পরিবারে বেচেঁ আছে তাঁর একমাত্র বড় মেয়ে জান্নাতুল মারুফা ও স্ত্রী মরিয়ম আক্তার। মরিয়ম আক্তার ঢাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে আয়া পদে কাজ করেন।
খবর পেয়ে নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন ভূইয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।এসময় স্থানীয় লোকজনের সুপারিশে নিহতদের ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন-কাফনের ব্যবস্থা করা হয়।
এ বিষয়ে চন্ডিপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন,বিষয়টি খুবই হৃদয়বিদারক।অটোরিকশা চার্জে দেওয়া ছিল।অটোরিক্সাটি চার্জে থেকে খুলতে গিয়েই বিদ্যুতায়িত হয়ে জামাল উদ্দিন সহ তাঁর পরিাবের ৪ জন লোক মারা যায়।
নান্দাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আব্দুল মজিদ বলেন,বিদ্যুতায়িত হয়ে এক পরিবারের ৪ জন সদস্যের মৃত্যুর খবর শুনেই আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করি।বিষয়টি খুবই হৃদয়বিদারক।
এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নিজ পরিজন,আত্নীয় স্বজনসহ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button