জাতীয়জাতীয় খবর

ময়মনসিংহে মেধা ও যোগ্যতায় পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরি পেলেন ১২৮ জন 

ময়মনসিংহে মেধা ও যোগ্যতায় পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরি পেলেন ১২৮ জন 
এস এম হোসেন আলী,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
পরিবর্তিত সময় ও অগ্রসরমান আধুনিক সমাজের চাহিদা পূরণ এবং স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে সক্ষম সৎ, যোগ্য, সাহসী ও ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গঠনে সেবার মহান ব্রত নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী প্রার্থীদের খুঁজে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হলে চূড়ান্ত ফলাফলে চাকুরি পেলেন ১২৮ জন।
শনিবার দিবাগত রাতে অর্থাৎ রবিবার ২৪ মার্চ ২০২৪ ইং তারিখে এ ফলাফল ঘোষণা করেন ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঁঞা, বিপিএম,পিপিএম।
গত ১৮ জানুয়ারী ২০২৪ ইং তারিখ বাংলাদেশ পুলিশের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। অনলাইনে আবেদন ও প্রাথমিক যাচাই-বাছাই শেষে ময়মনসিংহ জেলায় ৫৭৫৯ জন প্রার্থীর আবেদন গৃহীত হয়।৫৭৫৯ জন প্রার্থীর মধ্য হতে ১৪০৭ জন প্রার্থী শারীরিক মাপ, কাগজপত্র যাচাই ও Physical Endurance Test পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ১৬ই মার্চ ২০২৪ ইং তারিখ লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন তারা।
লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৩৬১ জন প্রার্থী ২৩ মার্চ ২০২৪ ইং তারিখ মনস্তাত্ত্বিক ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন যার মধ্যে ১০৯ জন পুরুষ এবং ১৯ জন নারী প্রার্থী ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে বাংলাদেশ পুলিশের নবীন সদস্য হিসেবে নিয়োগের জন্য সুপারিশপ্রাপ্ত হন।
নিয়োগের জন্য বিভিন্ন কোটা পদ্ধতি অনুসারে
ক. পোষ্য কোটা-পুরুষ-১১ জন, নারী-০১ জন
খ. মুক্তিযোদ্ধা কোটা-পুরুষ-২২ জন, নারী-৩ জন
গ. ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোটা-পুরুষ-৩ জন, নারী-১ জন
ঘ. সাধারণ কোটা-পুরুষ-৭৩ জন, নারী-১৪ জন
সুপারিশপ্রাপ্তদের মধ্যে ১৫ জন প্রার্থী এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত। ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ-২০২৪ ইং তারিখ এ লিখিত পরীক্ষায়  ৪৫ নম্বরের মধ্যে ৩৮ নম্বর পেয়ে ময়মনসিংহ জেলায় ১ম স্থান অধিকার করেছেন শিমুল হাসান রিফাত, পিতা- হারুন অর রশিদ, মাতা-কল্পনা বেগম, সাং-রাজগঞ্জ, থানা-কোতোয়ালী, জেলা-ময়মনসিংহ।
সামাজিক, পারিবারিক, আর্থিক ও নানান পারিপার্শ্বিক প্রতিকূলতার কাছে হার না মানা প্রার্থীরা প্রতিযোগিতার দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে মেধা, যোগ্যতা ও সাহসিকতার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে দেশ সেবার সুযোগ পাওয়ায় পুলিশ পরিবারের ১২৮ জন নবীন সদস্যকে জেলা পুলিশ, ময়মনসিংহের পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
বাংলাদেশ পুলিশের সদস্য হয়ে দেশ সেবার স্বপ্নে বিভোর তারুণ্যদীপ্ত চাকুরি প্রার্থীদের মধ্যে তুমুল প্রতিযোগিতার মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থীদেরকে খুঁজে বের করতে বাংলাদেশ পুলিশের নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়া স্বচ্ছতা, নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে দিকনির্দেশক হিসেবে কাজ করেছে। মাঠ পর্যায়ে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দায়িত্ব পালনকারী সকল কর্মকর্তাগণ পুলিশ সদর দপ্তরের প্রবর্তিত নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশ পুলিশের নবীন সদস্যদের আনন্দ জোয়ারে অংশীদার হতে পেরে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ গর্বিত ও আনন্দিত।
পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঁঞা,বিপিএম, পিপিএম  সমগ্র নিয়োগ প্রক্রিয়ার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সভাপতি হিসেবে স্বশরীরে উপস্থিত থেকে প্রতিটি পর্যায়ে সর্বোচ্চ স্বচ্ছ্বতা, নিয়মানুবর্তিতা নিশ্চিত করেন এবং চূড়ান্ত ভাবে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন।


Discover more from Bangovumi

Subscribe to get the latest posts to your email.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from Bangovumi

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading