সম্পূর্ন জানতে দেখতে ক্লিক করুন
বাংলাদেশ

সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী ও সমর্থকদের প্রচার-প্রচারণায় এখন সরব চট্টগ্রাম।

সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী ও সমর্থকদের প্রচার-প্রচারণায় এখন সরব চট্টগ্রাম।

সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী ও সমর্থকদের প্রচার-প্রচারণায় এখন সরব চট্টগ্রাম।

আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী ও সমর্থকদের প্রচার-প্রচারণায় এখন সরব চট্টগ্রাম। নির্বাচনী এলাকায় প্রার্থী নিজে এবং তাদের কর্মী-সমর্থকরা দিনরাত গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। পাশাপাশি বিকেল ৩ টার পর থেকে মাইকে ভোটারদের নিজেদের মার্কায় ভোট প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচারণা ও রকমারি স্লোগানে মুখর নগরী এবং প্রতিটি সংসদীয় এলাকা।
চট্টগ্রাম-৯ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের সমর্থনে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ২০ নং দেওয়ানবাজারস্থ আবুল কালাম সওদাগরের বাসভবন প্রাঙ্গণ থেকে জনসংযোগ কার্যক্রম পরিচালিত হয়।
এ সময় ভোটারদের উদ্দেশ্যে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এমপি বলেন, কর্ণফুলী তীর সংলগ্ন এই এলাকাটি অনেক ঐতিহ্যবাহী। জোয়ার-ভাটার কারণে এখানকার নি¤œাঞ্চলগুলো প্লাবিত হয়। জনদুর্ভোগ বাড়ে। আমি সমস্যাগুলো অনুধাবন করি এবং তা সমাধানে আমার কিছু ভাবনা-চিন্তা আছে। বিলুপ্ত প্রায় চাক্তাই খাল পুনরুদ্ধারে যে প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে তার আমি দেখভাল করবো।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, আইন বিষয়ক  সম্পাদক এড. শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, কার্যনির্বাহী সদস্য আলহাজ পেয়ার মোহাম্মদ, দেওয়ানবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়ব ছিদ্দিকীসহ ওয়ার্ড ইউনিট ও ইউনিট আওয়ামী লীগ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।
চট্টগ্রাম-১০ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলহাজ মো. মহিউদ্দিন বাচ্চু এমপি আজ বৃহস্পতিবার ১১ নং দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডে জনসংযোগকালে বলেন, আমি নেত্রীর প্রতীক পেয়েছি। আমাকে ভোট দেওয়া নয়, আপনারা প্রধানমন্ত্রীকে ভোট দিবেন। তিনি এই জাতিকে এগিয়ে নেবেন। আজ চারদিকে ষড়যন্ত্র হচ্ছে বাংলাদেশকে পিছিয়ে নেওয়ার। আপনাদের রায়ে আমরা বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবো।
তিনি আরো বলেন, মানুষের সুখ-দুঃখের সাথেই ছিলাম একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে। নেত্রী যখন আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন তখন আমি গুরুত্ব দেবো উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জানমাল রক্ষায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সামাজিক সুরক্ষাবলয় রচনা করেছেন তা প্রদানে এলাকা ভিত্তিক পর্যবেক্ষণ টিম গঠন করে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের কাছে পৌঁছানোর বিষয়টি আমি দেখাশুনা করবো।
১১ নং দক্ষিণ কাট্টলীস্থ লোহারপোল সম্মুখ চত্বর থেকে গণসংযোগ কার্যক্রম শুরু হয়। এই কার্যক্রমে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম ১০ সংসদীয় আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আলহাজ বদিউল আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও চট্টগ্রাম ১০ সংসদীয় আসন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব আলহাজ শফিকুল ইসলাম ফারুক, মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক লায়ন মো. হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য মোরশেদ আকতার চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা এরশাদুল আমিন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কাউন্সিলর অধ্যাপক মো. ইসমাইল, সাধারণ সম্পাদক আসলাম হোসেন সওদাগর প্রমুখ।

সংসদ-নির্বাচনকে-ঘিরে-প্রার্থী-ও-সমর্থকদের-প্রচার-প্রচারণায়-এখন-সরব-চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রাম-১০ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ মো. মহিউদ্দিন বাচ্চুর সমর্থনে তার নির্বাচনী কার্যালয়ে আজ মহিলা সমাবেশে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন সভাপতির বক্তব্যে বলেছেন, নারীর ক্ষমতায়নে পরিবার থেকে দাবি আসছে, তাদের মতামত গ্রহণ করতে হবে। পরিবার, মহল্লা ও সমাজ যেখানে আমাদের নারী নেতৃত্ব আছে তাদেরকে অবশ্যই ভোটকেন্দ্রে আসতে হবে। কারণ এই নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক করতে নারীদের বিপুল অবদান থাকতে হবে।
আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মহিউদ্দিন বাচ্চু বলেন, আমাদের ভোটারদের মধ্যে যারা নারী আছেন, মা-বোন আছেন তাদেরকে এক জায়গায় এসে সিদ্ধান্ত নিতে হবে এই দেশ কী আফগানিস্তান হবে – যেখানে নারীরা অবরুদ্ধ ও শৃঙ্খলিত। আমি তা কোনভাবেই চাই না। আমার নির্বাচনী এলাকায় পোশাক শিল্পে যে সকল নারী কর্মজীবী রয়েছেন তাদের অধিকার সুরক্ষায় আমি প্রত্যেকের ঘরে ঘরে যাবো তাদের অভাব অভিযোগের কথা শুনবো এবং সমস্যা লাঘব করবো।
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর নীলু নাগের সঞ্চালনায় নারী সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন আলহাজ বদিউল আলম, শফিকুল ইসলাম ফারুক, মো. হোসেন, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর হুরে আরা বিউটি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক বিলকিছ কলিমউল্লাহ, সদস্য মহিলা কাউন্সিলর তসলিমা নুর জাহান রুবি, আনজুমান আরা বেগম, মহিলা শ্রমিক লীগের আনোয়ারা আলম প্রমুখ।
সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত পাঠ করেন চেমন আরা বেগম।
প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক ফোরামের সভাপতি ও সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী চাকসু ভিপি মো. নাজিম উদ্দিন বলেছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্ট মানুষের প্রয়োজন। আর স্মার্ট হাটহাজারী গড়তে আমাকে একবার সুযোগ দিন। হাটহাজারী উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা গড়ার পাশাপাশি নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি, শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলা, কারিগরি শিক্ষা প্রসারে কাজ করবো।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে হাটহাজারী সদরের একটি রেস্টুরেন্টে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।
ভিপি নাজিম বলেন, হাটহাজারীবাসীর উন্নত জীবন গড়তে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা, ফরহাদাবাদ থেকে বুড়িশ্চর পর্যন্ত সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি, অসাম্প্রদায়িক পরিবেশ, নাগরিক বিনোদন, কর্মসংস্থান, পরিবেশ দূষণ ও ভেজালমুক্তকরণ, টেন্ডারবাজ ও চাঁদাবাজমুক্তকরণ, সর্বপ্রকার স্বাস্থ্যঝুঁকি নিয়ন্ত্রণ প্রভৃতি উদ্যোগ নেবো। এ ছাড়া খাল ও নদী সংরক্ষণসহ অবৈধ দখল উচ্ছেদ, স্বজনপ্রীতি দূর করা, প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র রক্ষাসহ স্মার্ট হাটহাজারী গড়ে তুলতে কাজ করবো। তাই সবাইকে বলবো ৭ জানুয়ারি আপনারা নিজ নিজ ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সোনালী আঁশ (পাট) মার্কায় ভোট দিন।
যুবনেতা সাইদুল হক সুমন, আওয়ামী লীগ নেতা মো. সুমন, মো. শিবলু, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ খালেদ চৌধুরী, যুবনেতা ইয়াহিয়া চৌধুরী জিয়াসহ হাটহাজারীতে কর্মরত জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকার সংবাদকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
আজ দুপুর ১ টায় হযরত শাহ আমানত (রহ.) মাজার শরিফ জিয়ারতের মাধ্যমে চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালী-বাকলিয়া-চকবাজার) সংসদীয় আসনে মোমবাতির নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় যুগ্মমহাসচিব ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি প্রধান মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদি, ইসলামী ফ্রন্টের প্রচার সচিব, আনোয়ারা-কর্ণফুলীর সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী মাস্টার মুহাম্মদ আবুল হোসাইন, আলহাজ মাওলানা নুরুল আবছার আল কাদেরী, কেন্দ্রীয় আইন উপকমিটির সদস্য এডভোকেট এডিএম আরুছ, নগর উত্তর ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন মাহমুদ, সহ সভাপতি মাওলানা আরিফুর রহমান প্রমুখ।
হযরত শাহ আমানত ও হযরত বদর শাহ আউলিয়ার মাজার জিয়ারত শেষে আনসার ক্লাব, বক্সির হাট, টেরিবাজার এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি। গণসংযোগকালে তিনি বলেন, সাংবিধানিক সংকট থেকে দেশকে রক্ষা ও গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট। নির্বাচন কমিশন কর্তৃক সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানের আশ্বাস পেয়েই আমরা নির্বাচনী উৎসবে নেমেছি। ভোটাররা ভোট দিতে পারলে ফলাফল আমাদের অনুকূলে থাকবে ইনশাআল্লাহ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button