সারাদেশ

৩১ দিন পর ২৩ নাবিক জাহাজ সহ মুক্তির সংবাদে মিলল পরিবার সমূহের স্বস্তির নিশ্বাস 

৩১ দিন পর ২৩ নাবিক জাহাজ সহ মুক্তির সংবাদে মিলল পরিবার সমূহের স্বস্তির নিশ্বাস 

মোকতার আহমদ, চন্দনাইশ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

দিনের পর সপ্তাহ, আর সপ্তাহের পর মাস গিয়ে ৩১দিন পর স্বস্তির নিশ্বাস পেল ২৩ নাবিকের পরিবার। মুক্তি পাচ্ছে জাহাজ সহ ২৩ নাবিক।

জিবিকার তাগিদে নিজ জন্মভূমি ও আত্নীয় স্বজন ফেলে ১২ মার্চ কয়লা নিয়ে আফ্রিকার মোজাম্বিক হয়ে দুবাই যাত্রাকালে ভারত সাগরের সোমালিয়ায় জলদস্যুদের কবলে পড়ে জাহাজ সহ ২৩ নাবিক। মুক্তিপনের জন্য মৃত্যুর মখোমুখি ছিল ২৩ নাবিক।

আরামের ঘুম হারাম হয় ২৩ পরিবারের নাবিকদের। আদৌ জান বাজি রেখে জন্মভুমি বাংলাদেশে ফিরবে কিনা এ নিয়ে নিঘুর্ম ছিল তাদের পরিবার। কত সিন্নি সালাত ও দোয়া মাহফিলের আয়োজনে ছিল তাদের পরিবারে।

চোখের জলে বুক ভাসিয়ে মহান রবের দরবারে দু-হাত তুলে একটি আকুতি ছিল-আল্লাহ আমার স্বামী কে ফেরৎ দাও। দু:খিনি মা-জননীর আর্তনাদ ছিল -হে সৃষ্টিকর্তা তুমি রহম কর,আমার আদরের সন্তান কে আমার বুকে ফিরিয়ে দাও।তবে বাংলাদেশ সরকার ও তাদের উদ্ধারে তৎপরতা অব্যাহত রাখে।

গত শনিবার ১৩ এপ্রিল মুক্তিপনের ডলার ভর্তি ব্যাগের মাধ্যমে ২৩ নাবিকের মুক্তি মিলেছে ১৪ এপ্রিল রবিবার বিষয়টি নিশ্চিত করছেন জাহাজের মালিকপক্ষ কবির গ্রুফের মুখপাত্র মিজানুল ইসলাম। গত শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৩ বেজে ৮ মিনিট। ছোঠ হেলিকপ্টারে ডলার ভর্তি ব্যাগ দস্যূ কবলিত জাহাজের পাশে সাগরে নিক্ষেপ করা হল।

আর অপেক্ষমান ৬৫ জল দস্যুদের এক প্রতিনিধি দল ডলার ভর্তি ব্যাগ সাগর থেকে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে গিয়ে ৮ ঘন্টা পর কাঙ্খিত ডলার ভর্তি ব্যাগ পেয়ে ২৩ নাবিক সহ জাহাজটি ছেড়ে দিয়ে সর্বমোট ৬৫ জলদস্যুরা বোটে তাদের স্থানে চলে যান। ১৯/২০ এপ্রিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে আল-–হামিরা বন্দরে যাবে জাহাজটি।

এরপর দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে জাহাজের মুখপাত্র মিজান আরো বলেন, ২৩ নাবিকে চট্টগ্রামে নেয়ার পর আনুষ্টানিকতা শেষে স্বজনদের কাছে ফিরে যাবে। তবে এত কম সময়ে আর কোনসময়ে জলদস্যু কর্তৃক আক্রান্ত জাহাজের মুক্তি মিলেনি। এদিকে আজ ১৪ এপ্রিল দুপুর চট্টগ্রামের বারেক বিল্ডিং মোড়ে কে এস,আর এম ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ২৩ নাবিক মুক্তির বিষয়ে তথ্য জানান, ডি এম, ডি শাহরিয়ার জাহান রাহাত।

তিনি বলেন,আমাদের জাহাজ হাইরিকস এরিয়ার বাইরে ছিল।২শ নটিক্যাল মাইল রিক্সি , আমরা ৬শ নাটিক্যাল মাইলে ছিলাম। তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ধন্যবাদ জানান। বিদেশী যুদ্ধ জাহাজ কোর্স কুলি জাহাজটি উদ্ধারে যেতে চেয়েছিল। আমাদের সরকার কুইক রেসপন্স করেছে।

আবার সাংবাদিকরা ও সহযোগিতা করেছেন। তিনি আরো বলেন, আজ ১৪ এপ্রিল ভোর ৩টায় জাহাজের ক্যাপ্টিনের সাথে কথা হয়েছে। তারা সবাই জাহাজে নিরাপদে রয়েছেন।২৩ নাবিক নিরাপদ থাকা ও দেশে ফেরার বিষয়টি সকলের মনে আনন্দের জোয়ার বইছে। সংবাদ সম্মেলনে উপিস্থিত ছিলেন, কে, এস ,আর এমের পরিচালক করিম উদ্দিন। মিডিয়া উপদেষ্টা মিজানুল ইসলাম প্রমুখ।


Discover more from Bangovumi

Subscribe to get the latest posts to your email.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from Bangovumi

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading