সম্পূর্ন জানতে দেখতে ক্লিক করুন
অন্যান্যজেলার খবর

গাজীপুরের পূবাইলে ডাকাতির লুন্ঠিত মালামাল সহ গ্রেফতার ৪ 

গাজীপুরের পূবাইলে ডাকাতির লুন্ঠিত মালামাল সহ গ্রেফতার ৪ 

মোঃ মুক্তাদির হোসেন। স্টাফ রিপোর্টার।

গাজীপুর মহানগরীর পূবাইলে নির্মাণাধীন উন্মুক্ত একটি বাড়িতে ডাকাতির ঘটনাটির ঘটনার ৭ দিনের মাথায় লুণ্ঠিত মালামালের আংশিক উদারসহ চার ডাকাতকে করেছে মেট্রোপলিটন পূবাইল থানা পুলিশ । গ্রেফতারকৃত ডাকাতরা হলো ময়মনসিংহের কোতোয়ালি থানার -চরহাসাদিয়া গ্রামের মৃত দুলালের ছেলে মো, ফারুক, নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা থানার যোগী শাসন গ্রামেন সাব্বির আলীর ছেলে সাগর আলী, শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানার চরসেনসাস গ্রামের জন শরীফ হাওলাদারের ছেলে রাসেল হাওলাদার ও একই জেলার গোসাইরহাট থানার গরিবের চর কাজী কান্দি গ্রামের দাদন মিয়ার ছেলে লোকমান। রোববার সকালে গ্রেফতারকৃতদের গাজীপুর আদালতে প্রেরণ করে জিএমপি পূবাইল থানা পুলিশ। পরে আদালতের বিচারক তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরন করেন। এ বিষয়ে জিএমপি পূবাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মো,কামরুজ্জামান বলেন- ঘটনার পর থেকে পূবাইল থানার উপ-পরিদর্শক হুমায়ূন কবির ও উত্তম কুমার সূত্রধর তাদের সহযোগীদের নিয়ে ৬ দিন ব্যাপী বিভিন্ন জেলায় অভিযান চলিয়ে শনিবার রাতে উল্লেখি ডাকাতদের গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো বলেন-লুণ্ঠিত মালামালের আংশিক উদ্ধার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ঘটনাটি ঘটেছে ২৯ জানুয়ারী রোববার দিবাগত রাত আনুমানিক তিনটার দিকে মহানগরীর ৪০ নং ওয়ার্ডের কুদাব মধ্যপাড়া ওকাল উদ্দিনের নির্মাণাধীন বাড়িতে। এ সময় মুখোশধারী ডাকাত দল সাড়ে ১১ ভরি সোনা, নগদ ১৩হাজার টাকা, দুটি দামীএন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন সেট লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতরা। ভূক্তভোগী ওকাল উদ্দিন। জানান, ডাকাত দলের ১০-১৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল বাড়ির পেছনের দিকে মই সংযোগ করে ছাদে উঠে। উন্মুক্ত ছাদ দিয়ে বাড়িতে ঢুকে বাড়ির চারটি গেট শাবল দিয়ে ভেঙে ফেলে। পরে প্রধান ফটক খুলে নেয়। ডাকাতেরা ঘরে ঢুকে ভাড়াটিয়াসহ সবাইকে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মোট সাড়ে ১১ ভরি স্বর্ণালংকার ও ১৩ হাজার টাকা, দুটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন সেট নিয়া যায়। এসময় ডাকাতদলের সবাই মুখোশ পরিহিত ছিল। এ ঘটনায় ওকাল উদ্দিন বাদী হয়ে পূবাইল থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-১১।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button